#নতুনকারিকুলাম

#যোগ্যতা পরিমাপ করবে শিক্ষক।
#অভিজ্ঞতা অর্জন করবে শিক্ষার্থী।
#জ্ঞান, দক্ষতা, দৃষ্টিভঙ্গি, মূল্যবোধের সমন্বয়ে শিক্ষার্থী অর্জন করবে যোগ্যতা।
#শিখন হবে অভিজ্ঞতায়;
#মূল্যায়ন হবে যোগ্যতায়।
#প্রতিযোগিতায় নয় শিখন হবে সহযোগিতায়।
#পরিবর্তনশীল প্রেক্ষাপটে অভিযোজনের জন্য জ্ঞান, দক্ষতা, মূল্যবোধ ও দৃষ্টিভঙ্গির সমন্বয়ে অর্জিত হবে সক্ষমতা।
#হাতে-কলমে শিখন অভিজ্ঞতা অর্জন করবে।
#জীবনভিত্তিক শিখন দক্ষতা অর্জন করতে -সূক্ষ্ণচিন্তন, সৃজনশীল চিন্তন ও সমস্যা সমাধানের জন্য করতে পারবে যোগাযোগের কৌশল, নিতে পারবে সিদ্ধান্ত।
#আত্মবিশ্বাস, পরমতসহিষ্ণুতা, শুদ্ধাচার, সংহতি, সম্প্রীতি, শ্রদ্ধা, ভালো কাজ,সত্যবাদিতা, পারস্পরিক সহযোগিতা ও পজিটিভ ভাবনার সুযোগ থাকছে কারিকুলামে।
#প্রজেক্ট এবং সমস্যাভিত্তিক শিখন, অনুসন্ধানভিত্তিক শিখন, হাতে কলমে কাজ করার ও স্ব-প্রণোদিত শিখনের সংমিশ্রণ থাকছে নতুন কারিকুলামে।
#শিক্ষক সহায়তাকারী এবং শিক্ষার্থী হবে সক্রিয় অংশগ্রহণকারী।
পরিবর্তন, প্রস্তুতি, মানসিকতা, মেনে নেওয়া আর মানিয়ে নিলেই কারিকুলাম বাস্তবায়ন সম্ভব।
আমরা যদি সক্রিয় হই তবেই কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারব।
২০৩০ সালে ক্ষুধা ও দরিদ্রতা মুক্ত বাংলাদেশ এবং
২০৪১ সালে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ে তুলবো।ইনশাআল্লাহ।

রিজিয়া পারভীন
সহকারী শিক্ষক (বাংলা)
কাপাসিয়া সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়
কাপাসিয়া, গাজীপুর।
#নতুনকারিকুলাম #যোগ্যতা পরিমাপ করবে শিক্ষক। #অভিজ্ঞতা অর্জন করবে শিক্ষার্থী। #জ্ঞান, দক্ষতা, দৃষ্টিভঙ্গি, মূল্যবোধের সমন্বয়ে শিক্ষার্থী অর্জন করবে যোগ্যতা। #শিখন হবে অভিজ্ঞতায়; #মূল্যায়ন হবে যোগ্যতায়। #প্রতিযোগিতায় নয় শিখন হবে সহযোগিতায়। #পরিবর্তনশীল প্রেক্ষাপটে অভিযোজনের জন্য জ্ঞান, দক্ষতা, মূল্যবোধ ও দৃষ্টিভঙ্গির সমন্বয়ে অর্জিত হবে সক্ষমতা। #হাতে-কলমে শিখন অভিজ্ঞতা অর্জন করবে। #জীবনভিত্তিক শিখন দক্ষতা অর্জন করতে -সূক্ষ্ণচিন্তন, সৃজনশীল চিন্তন ও সমস্যা সমাধানের জন্য করতে পারবে যোগাযোগের কৌশল, নিতে পারবে সিদ্ধান্ত। #আত্মবিশ্বাস, পরমতসহিষ্ণুতা, শুদ্ধাচার, সংহতি, সম্প্রীতি, শ্রদ্ধা, ভালো কাজ,সত্যবাদিতা, পারস্পরিক সহযোগিতা ও পজিটিভ ভাবনার সুযোগ থাকছে কারিকুলামে। #প্রজেক্ট এবং সমস্যাভিত্তিক শিখন, অনুসন্ধানভিত্তিক শিখন, হাতে কলমে কাজ করার ও স্ব-প্রণোদিত শিখনের সংমিশ্রণ থাকছে নতুন কারিকুলামে। #শিক্ষক সহায়তাকারী এবং শিক্ষার্থী হবে সক্রিয় অংশগ্রহণকারী। পরিবর্তন, প্রস্তুতি, মানসিকতা, মেনে নেওয়া আর মানিয়ে নিলেই কারিকুলাম বাস্তবায়ন সম্ভব। আমরা যদি সক্রিয় হই তবেই কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারব। ২০৩০ সালে ক্ষুধা ও দরিদ্রতা মুক্ত বাংলাদেশ এবং ২০৪১ সালে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ে তুলবো।ইনশাআল্লাহ। রিজিয়া পারভীন সহকারী শিক্ষক (বাংলা) কাপাসিয়া সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় কাপাসিয়া, গাজীপুর।
0 Comments 0 Shares 49779 Views